ছহি জঙ্গেনামা / আহসান হাবীব

[তেসরা বাব]

জ্বি হুজুর, আমি সেই হুজ্জত্ সরদার।
জান নিযে বেঁচে আছি পাক-পরওয়ার
খোদাওন্দ করিমের করম ফজলে।
তবে কি না এলাহীর লানতের ফলে
হয়েছে এমন হাল। হাড়-মাংসহীন
আমি সেই খাকছার হুজ্জত্ কমিন।

জ্বি হুজুর একদিন এই দুই হাতে
লড়েছি এগারো হাত কুমীরের সাথে,
গাঙের কুমীর টেনে তুলেছি ডাঙ্গায়
ভেঙ্গেছি বাঘের মাথা এই বাম পায়।
এক হাতে ঠেকিয়েছি পঞ্চাশ লেঠেল
দশখানা লাঠি নিয়ে দেখিয়েছি খেল!

হুজ্জত্ সরদার আমি মানুন একিন।
ফখর করি না কিছু ছিল একদিন
যেদিন নেজার কোপ ফিরেছে এ বুকে
মওতের সামনেতে গেছি তাল ঠুকে,
দু’চার বাঘের বল ছিল কব্জায়
ডর-ভয় বলে কিছু ছিল না ছিনায়।
দেড় হাত চওড়া ছিল ছিনার বহর,
শুনেছি দুচোখ ছিল আগ্ বরাবর,
আর সব লোক ছিল কোমর সমান
ছ’হাত শরীরে ছিল ইস্পাতের বান।
খোদার ফরজন্দ এই হুজ্জত্ সরদার
বেইমানীর কোনোকালে ধারে নাই ধার।
যেখানে দেখেছি কিছু বে-এনসাফির
মওত কবুল করে করেছি ফিকির।
আতশী নজর দেখে কেঁপেছে বেইমান,
সেকান্দর শা’র মত ছিল মোর শান।

তারপর জিন্দিগীর নতুন ছবক
জবর খবর এক শুনি আছানক।
ইংরাজ-জার্মানে নাকি লেগেছে লড়াই
ঢাল-তরোয়ালে কারো কমি কিছু নাই,
দুই পক্ষ তেজিয়ান সমানে সমান
কাতারে কাতারে নাকি কাটিছে গর্দান।
পহেলা পহেলা খুব খুশি হল মন
কারণ বাঁচে না কেহ আখেরে মরণ!
তবে কেন মরিব না লড়িয়া চড়িয়া
মারিয়া অরির বংশ মরি দাদ নিয়া।

জানতো কে এ লড়াই মানুষের নয়
হাওয়ানের হানাহানি। এ পৃথিবীময়
ছড়াবে আগুন এরা, লোভের আগুন।
বেকসুর মানুষেরা হয়ে যাবে খুন।

একদিন দেখাগেল নুন নেই ঘরে
দেখা গেল পরদিন বৌয়ের ছতরে
ইজ্জত বাঁচার মত তেনাটুকু নাই
আচম্বিত শরমেতে নজর নামাই।
ফুরায়েছে কেরাসিন, নিভে গেল আলো
ভাবি এ রাতের মত মন্দের ভালো।
তারপর ক্রমে ক্রমে অনেক দেখেছি
অনেক দুঃখের কথা স্মরণে রেখেছি।

দেখেছি কেমন করে বাঁচাতে ইজ্জত
ঝি-বৌ নিয়েছে বেছে মওতের পথ,
মওতের হাত থেকে বাঁচার আশাতে
দেখেছি কেমন করে নিজেদের হাতে
ইজ্জত করেছে বিক্রি দেশের মা বোন
চতুর্দিক ছেয়ে গেলো সফেদ কাফন।
উপবাসী আওলাদের চোখ পুছে দিয়ে
হুজ্জত্ সরদার আমি উঠানেতে গিয়ে
হঠাৎ পাগলপ্রায় কাঁদি জারেজার
আজদাহা প্রমাণ সেই হুজ্জত্ সরদার।

কোথায় লড়াই হয় রাজায় রাজায়
ধানের মরাই মোর খালি হয়ে যায়,
খালি হয়ে গেল মোর চালভরা জালা
বন্ধক পড়েছে কবে বাটি আর থালা।
সোনার সংসার মোর হল ছারখার
একমাত্র পুত্র গেল, মা-জননী তার
গেল সেই পুত্রশোকে। হুজ্জত্ সরদার
আমি একা বেঁচে আছি গজব খোদার।

(রচনা কাল ১৯৪৬)

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s