রণভেরি / কাজী নজরুল ইসলাম

[গ্রিসের বিরুদ্ধে আঙ্গোরা-তুর্ক-গভর্নমেন্ট যে যুদ্ধ চালাইতেছিলেন, সেই যুদ্ধে কামাল পাশার সাহায্যের জন্য ভারতবর্ষ হইতে দশ হাজার স্বেচ্ছাসৈনিক প্রেরণের প্রস্তাব শুনিয়া লিখিত।]

ওরে আয়!
ওই মহাসিন্ধুর পার হতে ঘন রণভেরি শোনা যায় –
ওরে আয়!
ওই ইসলাম ডুবে যায়!
যত শয়তান
সারা ময়দান
জুড়ি খুন তার পিয়ে হুংকার দিয়ে জয়গান শোনা যায়!
আজ শখ করে জুতি টক্করে
তোড়ে শহিদের খুলি দুশমন পায় পায় –
ওরে আয়!
তোর জান যায় যাক পৌরুষ তোর মান যেন নাহি যায়!
ধরে ঝঞ্ঝার ঝুঁটি দাপটিয়া শুধু মুসলিম পঞ্জায়!
তোর মন যায় প্রাণ যায় –
তবে বাজাও বিষাণ ওড়াও নিশান! বৃথা ভীরু সমঝায়!
রণ দুর্মদ রণ চায়।
ওরে আয়!
ওই মহাসিন্ধুর পার হতে ঘন রণভেরি শোনা যায়!
তোর ভাই ম্লান চোখে চায়,
মরি লজ্জায়,
ওরে সব যায়,
তবু কবজায় তোর শমশের নাহি কাঁপে আপশোশে হায়?
রণ দুন্দুভি শুনি খুন-খুবি
নাহি নাচে কি রে তোর মরদের ওরে দিলিরের গোর্দায়?
ওরে আয়!
মোরা দিলাবার খাঁড়া তলোয়ার হাতে আমাদেরই শোভা পায়!
তারা খিঞ্জির, যারা জিঞ্জির -গলে ভূমি চুমি মুরছায়।
আরে দূর দূর! যত কুক্কুর
আসি শের-বব্বরে লাথি মারে ছি ছি ছাতি চড়ে! হাতি
ঘাল হবে ফেরু -ঘায়?
ওরে আয়!
বোলে দ্রিম দ্রিম তানা দ্রিম দ্রিম ঘন রণ-কাড়া-নাকাড়ায়!
ওই শের-নর হাঁকড়ায়
ওরে আয়!
ছাড় মন-দুখ
ওই বন্দুক তোপ, সন্দুক তোর পড়ে থাক, স্পন্দুক বুক ঘায়!
নাচ তাতা থই থই তাতা থই –
থই তাণ্ডব, আজ পাণ্ডব সম খাণ্ডব-দাহ চাই।
ওরে আয়।
কর কোরবান আজ তোর জান দিল আল্লার নামে ভাই!
ওই দীন দীন-রব আহব বিপুল বসুমতী ব্যোম ছায়!
শেল গর্জন
করি তর্জন
হাঁকে-, ‘বর্জন নয় অর্জন’ আজ শির তোর চায় মা-য়!
সব গৌরব যায় যায়;
ওরে আয়!
বোলে দ্রিম দ্রিম তানা দ্রিম দ্রিম ঘন রণ-কাড়া-নাকাড়ায়!
ওরে আয়!
ওই কড় কড় বাজে রণ-বাজা, সাজ সাজ রণ-সজ্জায়!

ওরে আয়!
মুখ ঢাকিবি কি লজ্জায়?
হুর হুররে!
কত দূর রে
সেই পুর রে
যথা খুন-খোশরোজ খেলে হররোজ দুশমন খুনে ভাই!

সেই বীর-দেশে চল বীর বেশে,
আজ মুক্ত দেশেরে মুক্তি দিতে রে বন্দিরা ওই যায়!
ওরে আয়!
বল্ ‘জয় সত্যম্ পুরুষোত্তম’, ভীরু যারা মার খায়!
নারী আমাদেরই শুনি রণ-ভেরি হাসে খলখল, হাত-তালি দিয়ে রণে ধায়!
মোরা রণ চাই রণ চাই,
তবে বাজহ দামামা, বাঁধহ আমামা, হাথিয়ার পাঞ্জায়,
মোরা সত্য-ন্যায়ের সৈনিক, খুন-গৈরিক বাস গায়।
ওরে আয়!
ওই কড় কড় বাজে রণ-বাজা, সাজ সাজ রণ-সজ্জায়!
ওরে আয়!
অব- রুদ্ধের দ্বারে যুদ্ধের হাঁক নকিব ফুকারি যায়!
তোপ দ্রুম দ্রুম গান গায়!
ওরে আয়!
ওই ঝনন রনন খঞ্জর-ঘাত পঞ্জরে মুরছায়!
হাঁকো হাইদর
নাই নাই ডর,
ওই ভাই তোর ঘুর-চরখির সম খুন খেয়ে ঘুর খায়।
ঝুটা দৈত্যেরে
নাশি, সত্যেরে
দিবি জয়-টীকা তোরা, ভয় নাই ওরে ভয় নাই হত্যায়!
ওরে আয়!
মোরা খুন-জোশি বীর, কঞ্জুসি লেখা আমাদের খুনে নাই।
দিয়ে সত্য ও ন্যায়ের বাদশাহি, মোরা জালিমের খুন খাই।
মোরা দুর্মদ, ভরপুর মদ
খাই ইশ্‌কের, ঘাত শমশের ফের নিই বুক নাঙ্গায়!
লাল পলটন মোরা সাচ্চা
মোরা সৈনিক, মোরা শহিদান বীর বাচ্চা!
মরি জালিমের দাঙ্গায়!
মোরা অসি বুকে বরি হাসি মুখে মরি, ‘জয় স্বাধীনতা’ গাই।
ওরে আয়!
ওই মহাসিন্ধুর পার হতে ঘন রণভেরি শোনা যায়!!

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s