পোস্ট করেছেন সাইফ আলি

নাম: মোঃ সাইফুল্লাহ হাবীব, লেখক এবং শিল্পী হিসেবে ব্যবহৃত নাম: সাইফ আলি, ডাক নাম: শোভন, পিতা: মো: আশরাফুল ইসলাম এবং মাতা: শাহানারা খাতুন। জন্ম: ১৫, জুন, ১৯৯০; ঝিনাইদহ সদরে। বর্তমান অবস্থান: এম. এফ. এ.(১ম পর্ব ), অঙ্কন ও চিত্রায়ন বিভাগ, চারুকলা অনুষদ; ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। প্রকাশিত বই: আমি আকাশ দেখতে যাবো (২০১২) এবং পুতুল খেলার গল্প (২০১৭)।

আহলান সাহলান / সাইফ আলি

আহলান সাহলান
রামাদান মাহে রামাদান

আল কোরানের মাস এলোরে
রহমতের মাস এলো
মাগফিরাতের মাস এলোরে
নাজাতের ঐ মাস এলো
জাগো মুসলমান, জাগো মুসলমান।।

খুলেছে রাইয়ান দরজা খোদা
রোজাদারের উপহার
নাও লুফে এই সুজোগ তোমার
শুকর গোজার করো তার।

দান করো আজ হৃদয় খুলে
ভোগ বিলাসের পথ ছাড়ো
খোদাভীতির প্রদীপ জেলে
হৃদয়টাকে পাক করো
জাগো মুসলমান, জাগো মুসলমান।।

Advertisements

মেঘলা আকাশ / সাইফ আলি

মেঘলা আকাশ
বৃষ্টি কল্পনায় মজে আছে চারপাশ
এখনি নামবে
হৃদয় হরণ করা বৃষ্টি সুধা তাই
এলোমেলো ছুটছে বাতাস…

তুমি কি পারোগো বৃষ্টি আমার এই
হৃদয়ের দাবানল নিভিয়ে দিতে
ফিরিয়ে দিতে সেই প্রিয় স্পর্শ
ভুলিয়ে দিতে তার বিভৎস লাশ।।

লালে লাল রাজপথ রক্তের রঙে তার
বুক ভরা সুরভী মুক্তির চেতনার
যুক্তির বেড়াজাল ছিন্ন করে তবু
নামলো এ কেমন আঁধার।

তুমি কি পারোগো বৃষ্টি আমার এই
ভাইহারা বেদনার তাপ কমাতে
থামিয়ে দিতে সব হিংসার দ্বন্দ্ব
বুকে নিয়ে শহীদের প্রিয় নির্জাস।।

এই আলোছায়ার সন্ধ্যাবেলায় / সাইফ আলি

এই আলোছায়ার সন্ধ্যাবেলায়
পাখিরা নীড়ে ফিরে আসছে
মুয়াজ্জিনের হৃদয়ের সুর
প্রকৃতির তারে তারে বাজছে

সূর্য ডুবেছে জানি নামবে আঁধার
প্রশান্ত চরাচর ঘুমিয়ে যাবে
চাঁদের সাথে তবু জাগবে চকর
সেজদায় মজে কেউ তোমাকে পাবে;
জানি, জান্নাতি বেশে সেই সাজছে।।

জোনাকি অথবা দূর তারার আলো
সকালের সাথে সব মিলিয়ে যাবে
যেই বান্দা তোমার তবু উঠবে জেগে
আজানের সুরে সুরে সুর মিলাবে;
জানি, জান্নাতি বেশে সেই সাজছে।।

হে আমার রব, মালিক আমার
আমাকেও রেখো সেই কাতারে,
(মিলিয়ে যেনো যায় না এ গান
ঘুমন্ত এ রাতের আঁধারে।)
তোমার রহমত পেয়ে যারা
সুরভী পাপড়ি মেলে হাসছে…
জানি, জান্নাতি বেশে তারা সাজছে।

সুন্দর / সাইফ আলি

সুন্দর কাকে বলে জানো?
সুন্দর শিশুটির মুখ, হাতের আঙুল; যখন সে শরীরের সমস্ত শক্তির জোরে ধরে রাখে মায়ের জগত…
কিংবা পিতার বুকে খুঁজে নেয় আদরের ভুঁই।
সুন্দর পাখিদের বাসা, পাতায় জড়ানো তার ছানার আওয়াজ,
প্রথম উড়তে শেখা, উড়ে যাওয়া প্রথম প্রহর; সুন্দর সবই।
সুন্দর মাছেদের চোখ, লেজ আর শরীরের যাবতীয় কৌশল সব-
সুন্দর ফুল, যখন ওলিরা আসে; ছুয়ে দেয়, সারাগায় পারাগের গুড়ো মাখে, তারপর অন্য কোনো ফুলে ঘুরে ঘুরে রেখে আসে জীবনের সুপ্ত রসদ-
সুন্দর যুবতীর বাহু, যুবকের উদোম শরীর; কর্ষিত জমিনের পাড়,
বোপনের সুখ, ব্যথা সব।
সুন্দর প্রেয়সীর চুল, বর্ষায় ভেজা; কদমের ঘ্রাণ-
সুন্দর কাকে বলে জানো?
মাঝে মাঝে মৃত্যুও হয়ে ওঠে তুখড় উপমা…

সবুজ লালের কোলাজ / সাইফ আলি

চাইনি গোলাপ পাপড়ি খুলে জাগবে এমন লালে
চোখ পড়ে যায় আমার বোনের ছিন্ন ছেঁড়া গালে
চাইনি নতুন সকাল আসুক এমন করুণ হালে…

এখন সবুজ মাঠের বুকে পা রেখে হই খুনি
সবুজ লালের কোলাজ যেনো তার চিৎকার শুনি
যার শরীর খুবলে খেয়েছিলো মরার পঙ্গপালে।।

বোধদয় / সাইফ আলি

:আজকাল সুদ ঘুষ কোনো অপরাধ না
মাত্রাটা ঠিক রেখে খেলে মামা ক্ষতি কি
তাছাড়া এ বাজারে সৎভাবে গতি কি?

ভাগ্নের কথা শুনে বলে মামা- তা বটে,
তাহলে তো সবই ঠিক আশেপাশে যা ঘটে।
:যেমন?
:এই ধর, ছোটোখাটো চুরি আর ডাকাতি
দু’একটা খুন-টুন, ধর্ষণ, ছিনতাই…
:ধুর ছাই কিসে কি??
:তেলে আর জলে কভু একসাথে মিশে কি?
সুদ ঘুষ ক্যান্সারে দিনে দিনে চুষে খায়
গরিবের অধিকার ক্রমাগত শুষে খায়;
মাত্রাটা যাই হোক বিষ সেটা বিষই হয়।

অবশেষে ভাগ্নের বোধদয় ঘটেছে
আজকাল সুদ ঘুষ ছোঁয় না তা মোটে সে।