নতুন এক মাত্রার হেমন্ত সংখ্যা: নানা মাত্রিক আয়োজনে সমৃদ্ধ / প্রজ্ঞা পারমিতা

নতুন এক মাত্রা

নতুন এক মাত্রা, হেমন্ত সংখ্যা, ২০১৬

নতুন মাত্রা যোগ করার প্রত্যয় নিয়ে নতুন এক মাত্রার অগ্রযাত্রা অব্যহত আছে। নভেম্বর-ডিসেম্বর হেমন্ত সংখ্যা নানা বিষয়ের সমাহারে বিচিত্র ও সমৃদ্ধ। সম্পাদকীয়তে উল্লেখ করা হয়েছে: নতুন চিন্তা, দৃষ্টি ও ভাব-বিষয়ের সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়া আমাদের অন্যতম কাজ। গণতান্ত্রিক ভাবনার চর্চা একান্ত কাম্য। প্রচ্ছদ কবিতা হিসেবে জীবনানন্দ দাশের ‘মাঠের গল্প’ ফসলের সম্ভারে পূর্ণ প্রকৃতি প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছে রঙিন চিত্র সজ্জায়। প্রচ্ছদও হেমন্তের প্রতিচ্ছবি হয়ে উঠেছে।

এ-সংখ্যার সবচেয়ে বড় আকর্ষণ নদীকেন্দ্রিক উপন্যাস নিয়ে একটি ক্রোড়পত্র। বাংলাদেশের নদীপ্রভাবিত জীবন ও সাহিত্যের বিস্তৃতি ও গভীরতার কথা বিবেচনা করে এটা করা হয়েছে। কাবেদুল ইসলামের ‘পদ্মানদীরমাঝি : একটি অসংস্কৃত জীবনের সংবেদ’, শামীমা হামিদের ‘কাঁদো নদী কাঁদো : বাকাল নদীর কান্না’, সুস্নাত জানার ‘তিতাস একটি নদীর নাম : জেলে জীবনের মহাকাব্য’, আশরাফ উদদীন আহমদের চরকাশেম : নদীপাড়ের মানুষের উপাখ্যান, মঈন শেখের ‘গঙ্গা : জেলে জীবনের এক অমোঘ তথ্যচিত্র’, আরিফ চৌধুরীর ‘কর্ণফুলি : নদী ও মানুষের জীবন আধ্যান’ প্রবন্ধগুলোতে নদীনির্ভর জীবন, জনপদ, প্রকৃতি, দ্বন্দ্ব-সংঘাত জীবনশিল্প হয়ে উঠেছে। প্রবন্ধে নদীভিত্তিক উপন্যাসগুলো আলোচিত হয়েছে বিচিত্র দৃষ্টিতে ও ভঙ্গিতে। নানা বিষয়ে চারটি প্রবন্ধ স্থান পেয়েছে: আবু সাইদ কামালের ‘বাংলাদেশের আদিবাসী, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী বা উপজাতি’, মুহম্মদ মতিউর রহমানের ‘কবি আবদুর রশিদ খান’, আশরাফ পিন্টুর ‘বাংলাদেশের প্রবাদে সমাজজীবন’, সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর ‘রেজাউদ্দিন স্টালিনের কবিতা : আত্মজৈবনিক ও সর্বজনীন’।

বাংলাদেশের প্রধান দুইজন কবি- সৈয়দ শামসুল হক ও শহীদ কাদরীর প্রস্থানে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন নুরুল করিম নাসিম ও এমরান কবির, যথাক্রমে ‘গল্পকার সৈয়দ হক ও অন্যান্য প্রসঙ্গ’ ও ‘আয়নায় আত্মহত্যা অথবা শহীদ কাদরীর কবিতা’ শিরোনামে।

নতুন স্বাদের কবিতা লিখেছেন: আল মাহমুদ, রবীন্দ্র গোপ, হাসান হাফিজ, জাফরুল আহসান, পুলক হাসান, সৈয়দ হাসমত জালাল, বুলান্দ জাভীর, রহমান হেনরী, মাহমুব খান, আব্দুর রহিম, অর্ণব আশিক, জয়দুল হোসেন, আনোয়ার কামাল ও সৈয়দ রনো। মহান মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র নিয়ে অনুপম হায়াৎ তথ্যবহুল রচনাটি লিখেছেন। নোবেল বিজয়ী বব ডিলানকে নিয়ে যে বির্তক সৃষ্টি হয়েছে তার প্রতি দৃষ্টি দিয়েছেন নাজিব ওয়াদুদ। অন্য মার্কিন নোবেলজয়ী উলিয়াম ফকনারকে নিয়ে সামগ্রিক আলোচনা করেছেন মনোজিৎ কুমার দাস। শিমুল মাহমুদের কবিতাভাবনা ও গুচ্ছ কবিতা কবিতার সীমাকে আরো বিস্তৃতি দিয়েছে।

‘উত্তরাধুনিকতার উত্তরকাল’ নিয়ে মননশীল লেখক সালাহউদ্দীন আইয়ুবের ধারাবাহিকটি বুদ্ধিবৃত্তির নতুন যাত্রানির্দেশ। ‘কুসুমিত কারাগার’ ধারাবাহিক উপন্যাসটিও বেশ উপভোগ্য হয়ে উঠেছে পাঠকের কাছে। মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলামের ব্যতিক্রমধর্মী লেখা‘ বাংলা ও ভাষাসাহিত্যে ঈসা খান’ পাঠকের কৌতূহলকে তৃপ্তি দেবে আশা করা যায়। মোহাম্মদ বরকতুল্লাহর ‘অনন্ত তৃষা’ অসাধারণ একটি রচনা নতুনভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। ম্যাথু আর্নলন্ডের ‘কবিতার পাঠ’ অনুবাদ করেছেন মাসুমা রুমা। ঐ নূতনের কেতন ওড়ে বিভাগে নতুন কবিদের কবিতা মুদ্রিত হয়েছে। এছাড়া আরো আছে কয়েকটি বই ও সাহিত্যপত্রের রিভিউ, সাহিত্য সন্দেশ ও পাঠ প্রতিক্রিয়া নিয়মিত বিভাগ। সবমিলিয়ে বৈচিত্রে ও বৈভবে বর্তমান সংখ্যাটি সমৃদ্ধ ও সংগ্রহযোগ্য বলা যায়।

নতুন এক মাত্রা
সম্পাদক: আল মুজাহিদী
হেমন্ত সংখ্যা ১৪২৩
দাম: ৪০ টাকা
উত্তরা, ঢাকা

Advertisements

‘নতুন এক মাত্রা’র শরৎ সংখ্যা : বৈচিত্রময় ও সমৃদ্ধ / প্রজ্ঞা পারমিতা

নতুন এক মাত্রা

নতুন এক মাত্রা, শরৎ সংখ্যা, ২০১৬

সাহিত্যের কাগজ প্রকাশ হচ্ছে প্রতিনিয়ত। তবে নতুন চিন্তা, আঙ্গিক ও ভাবধারার কাগজ কমই বের হয়। সৃজন ও মননের দৈন্য দশা এবং নানা ধরনের সীমাবদ্ধতা এক্ষেত্রে কাজ করে। নতুন ভাবনা, দৃষ্টি ও আয়োজন নিয়ে নতুন এক মাত্রা প্রকাশ হয়ে আসছে নিয়মিতভাবে। সম্প্রতি প্রকাশ পেয়েছে এর শরৎ সংখ্যা।

শরতের নীল-সাদা-সবুজের মিশ্রণে প্রচ্ছদ হয়ে উঠেছে নান্দনিক। প্রচ্ছদ রচনা ‘শরৎ : সমুজ্জ্বল শুভ্র’ লিখেছেন সাযযাদ কাদির। প্রবন্ধ শুরু হয়েছে আবুল কাসেম ফজলুল হকের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ লেখা ‘আমি প্রেম ধর্মের কথা বরতে চাই’ দিয়ে। অন্যান্য প্রবন্ধের মধ্যে আছে সাইফুল আলমের ‘বাংলার জাগরণ: বিবেচনা-পুনর্বিবেচনা’, আহমেদ মাওলার ‘সেলিম আল দীনের হাত হদাই : উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষেরা’, সরদার আবদুর রহমানের ‘বাংলাসাহিত্যে পদ্মার সেকাল-একাল’, মজিদ মাহমুদের ‘বাংলা ছোটগল্প : উৎস ও বর্তমান’, শাফিক আফতাবের ‘বাংলাদেশের আঞ্চলিক উপন্যাস : আবহমান স্থানিকতা’। এ সংখ্যার অন্যতম আকর্ষণ নুরুল করিম নাসিমের সম্পূর্ণ উপন্যাস ‘অন্য এক দিন’। একটি গ্রামীণ শ্যামলিমায় এক সন্ন্যাসীর জীবন ও তাকে ঘিরে নানা চরিত্র এবং বিদেশা গত কিছু চরিত্র ও নতুন আখ্যানের সমন্বয়ে উপন্যাসটি সুখপাঠ্য। ছোট গল্প লিখেছেন দীলতাজ রহমান, সোলায়মান আহসান, মুহাম্মদ মহিউদ্দিন ও স্বকৃত নোমান। সালাহউদ্দীন আইয়ুবের ‘উত্তরাধুনিকতার উত্তরকাল’ এবং জাফর তালুকদারের ‘কুসুমিত কারাগার’ ধারাবাহিক রচনা ও ধারাবাহিক উপন্যাস হিসেবে বেশ উপভোগ্য।

‘চিন্তাধারা বিভাগে’ এডওয়ার্ড ডব্লিউ সাঈদের ‘প্রাচ্যবাদ : পূর্ব ও পশ্চিমের ভাবনা ও আমাদের করণীয়’ মুক্তগদ্য লিখেছেন মোহাম্মদ জসিমউদ্দিন। কবিতা লিখেছেন কাজী রোজী, ময়ুখচৌধুরী, জাহাঙ্গীর ফিরোজ, রেজাউদ্দিন স্টালিন, আসলামসানী, হাসান আলীম, রেজা ফারুক, সরকার মাসুদ, মামুন সুলতান, বান্দা হাফিজ, ইসহাক আলী, হাসান রুহুল ও রোশনী ইয়াসমীন। গুচ্ছ কবিতা সৃজন করেছেন শিহাব সরকার। বিশ্বসাহিত্য বিভাগে সদরুদ্দিন আহমেদের ‘রবীন্দ্রনাথের উর্বশী, কীটস Ode on a Grecian Urn ও To Psyche একটি তুলনামূলক আলোচনা’ এবং সায়ীদ আবুবকরের ‘আইরিশ কবিতা : ঐতিহ্যের উত্তরাধিকার’ বেশ সুখপাঠ দুটি রচনা। অন্যান্য লেখার মধ্যে কাজী মো. মোস্তাফিজুর রহমানের ‘ঢাকার মোগল স্থাপত্য শৈলী ২’ সচিত্র ও তথ্যবহুল, চেমন আরার ‘অষ্ট্রেলিয়ারমারাকোপা গুহা’ ভ্রমণ বেশ আনন্দপ্রদ। পুনর্পাঠে কাজী নজরুল ইসলামের ‘ভাব ও কাজ’ লেখাটি নতুন চিন্তার সৃষ্টি করে।  ঐ নূতনের কেতন ওড়ে বিভাগে নবীন কবিদের কবিতা, পাঠপ্রতিক্রিয়ায় পাঠকের মতামত ও বই আলোচনায় চারটি গুরুত্বপূর্ণ বইয়ের রিভিউ হয়েছে।

সব মিলিয়ে শরৎ সংখ্যাটিকে বৈচিত্রময় ও সমৃদ্ধ একটি সাহিত্যপত্র বলা যায়। বিশেষভাবে সাইফ আলির অঙ্গসজ্জা ও অলঙ্করণের নান্দনিকতায় নতুন এক মাত্রা যোগ করেছে পত্রিকাটি। দ্বিমাসিক নতুন এক মাত্রার অগ্র যাত্রা অব্যহত থাকুক, এই কামনা রইল।

নতুন এক মাত্রা
সম্পাদক : আল মুজাহিদী
দ্বিতীয় বর্ষ পঞ্চম সংখ্যা
শরৎ
মূল্য: ৪০ টাকা
natunmatra2016@gmail.com