যদিও নতুন কবর / সাইফ আলি

এ মাটি খুড়তে গেলে
এখন আর হাড় পাবে না,
হয়তো মিলতে পারে
কাচা এক হৃদয় আমার।

এ মাটি কেবল মাটি
ভাবলে ভুল হবে খুব,
এখানে লক্ষ তারার
সমাধি, খুড়েই দেখো।

এখানে হাড় পাবে না
যদিও নতুন কবর,
তবুও মিলতে পারে
কাচা এক দিলের খবর।

19.11.18

Advertisements

আমার এই কলবে কেবল / সাইফ আলি

যে খাঁচায় বদ্ধ আমার অক্ষিগোলক
ঘুমের ভারে নুইয়ে আসে 
যে মাটির শীতল দেহের কঠোর ত্রাসে 
মনপাখিটা হয় উতলা
সে খাঁচা-মাটির ঘরে তোমার আলো পৌছিয়ে দাও;
আমার এই কলবে তুমি তোমার নূরের প্রদীপ জ্বালাও।

যে বাতাস কাঁপন ধরায়, শরীর ফুঁড়ে আত্মাটা ছোঁয়
সে বাতাস উড়াক তোমার বিজয় নিশান;
আমার এই নরম দু’হাত শক্ত করো কবুল করো
প্রতিকূল স্রোতের মুখে গায় যেনো সে তোমারই গান।

আলো আর অন্ধকারের সকল ভাষা তোমার জানা
আগুনের শিখাও তোমার হুকুম পেলে বিনম্র হয়;
তবে কোন জালিমশাহের আস্ফালন এই হৃদয় ছোঁবে
আমার এই কলবে কেবল জারি রেখো তোমারই ভয়।

অল্প / সাইফ আলি

অল্প আমার অল্প হয়েই থেকো
অল্পটা খুব টেস্টি হয়,
ভরি ভরির চাইতে সে ঠিক
বেস্টই হয়।

সাত বেলা যার কোরমা পোলাও চলে
তার কাছে ঝল-পান্তাটা টলটলে
সাত তলাতে বাস করে যেই লোকে
মাঝ রাতে ঘুম যায় ছুটে তার কুড়ে ঘরের শোকে।

অল্প তুমি বেশির খাতায়? না না…
পা রেখো না; মানা।

গল্পটা / সাইফ আলি

গল্পটাতে হঠাৎ হঠাৎ মোড় ছিলো
একটু বাদেই রাস্তা বাঁকা
পূর্ণ এবং হঠাৎ ফাঁকা
গল্পে গরু মেঘের উপর চড়ছিলো।

গল্পটাতে রস ছিলো না
তেতো
তবুও শ্রোতা আরাম করেই খেতো,
কিন্তু কড়া ঝাল ছিলো
সেই কারণেই কানদুটো খুব লাল ছিলো।

গল্পটাতে প্রেম ছিলো না
তাই বলে খুব লেম ছিলো না
প্রেম ছাড়াকি গল্প থাকার জো নেই
গল্পটা সে বলতো আপন মনেই।

গল্পটা সে বলতো না একটুও
প্রকাশ পেতো চলন বলন ঠাটে,
গল্পটা তার শেষ হয়েছে
চারপায়া এক আতরমাখা খাটে।

তুমি ঘন হও / সাইফ আলি

আহা মেঘ! কতোদিন পর তুমি এলে
আমাদের ‍বিস্তৃত তৃষ্ণার ভুঁই
চৌচির ফেটে
নদীর পকেটে নেই মাছের বিস্তার
পদ্মার তিস্তার পেটে
বালির সংসার; চলছে ড্রেজিং…

তুমি ঘন হও, গাঢ় হও
কালো হও তবু
নামুক বৃষ্টির ফোটা
গোটা গোটা যৌবন সুধায়
ভিজুক এ চোখ।

কলমের ঘোরাফেরা / সাইফ আলি

কলমের ঘোরাফেরা বাড়াচ্ছে পরিসর
উত্তর দক্ষিণ পূর্ব বা পশ্চিম ভুলে
উপর নিচের যত খবরাখবর
টেনে তুলে
রাখছে সে এমন খাতায়
পাতায় পাতায় যার জীবন মৃত্যু আঁকে ছবি
শোনো কবি,
কলমের ঘোরাফেরা থামিওনা বুদ্ধির প্যাচে
যখন হৃদয় তার গন্ডির অনুভুতি স্যাচে।

ডানে সমুদ্র বায়ে বৃষ্টি / সাইফ আলি

বাপাশে একটা ঘন মেরুন দুঃখ জমলে
ডানপাশে নীল সমুদ্র বিছাবো
মাথার ভীতরে চক্কর কাটা চিলটাকে
একবার শান্ত হয়ে বসতে বললাম।
বললাম- ভাবিসনে, এই নীল সমুদ্র যেই আকাশের প্রতিবিম্ব
সেই আকাশ পুরোটাই তোর।
রাডার ফাঁকি দিয়ে চিল
তবু সেই নীল জলে আছড়ে পড়ে; মেরুন দুঃখগুলো মেঘ হয়,
বৃষ্টি আনে;
ডানে সমুদ্র বায়ে বৃষ্টি!!