এক দিঘি হাঁস / সায়ীদ আবুবকর

ফুটে থাকা শাপলার মতো এক দিঘি হাঁস
করছিল উল্লাস
পড়ন্ত বিকেলে। বীণার তারের মতো তারা
বলছিল কথা ঠোঁটে ঠোঁটে, আর ঝড়ো বাতাসের মতো দিশেহারা
হয়ে করছিল ছুটোছুটি পানির উপর। মারছিল ডুব, কখনও বা,
অথৈ পানিতে নুড়ির মতো। বোবা
গাছগুলো, দিঘির পাড়ের, দেখছিল সেই খেলা
হাঁ-করে, বিকেলবেলা।

সুন্দর এ হাঁসগুলো কোনোদিন হিংসা দ্যাখেনি ছুঁয়ে। দ্যাখেনি কখনও
স্পর্শ করে তারা ঘৃণার আগুন। অসুস্থ প্রতিযোগিতা কোনো,
বাড়ির, গাড়ির, খ্যাতির ও ক্ষমতার, তাদের জীবনে
ছড়ায়নি অসুখ। পুষ্পিত মনে
তাই তারা খেলতে পারে এরকম। তাই তারা এরকম করে পারে
তুলতে বেহেস্তি সুর জগতসংসারে।

চলো আজ, প্রিয়তমা, বিপুল মানুষে মিশে যাই।
অন্তহীন জনতার স্রোতে মিশে গেলে, আমরা প্রকৃতি খুঁজে পাই
আর হয়ে যায় আমাদের মন
দিঘিটির হাঁসেরা যেমন।

২২.৯.২০১৪ মিলনমোড়, সিরাজগঞ্জ