চেতনার সরোবরে / ফজলুল হক তুহিন

গোধুলি বেলায় তুমি বসেছিলে নদীতীরে
অস্তগামী সূর্যের আলোয় উদ্ভাসিত মুখ,
রবীন্দ্রনাথের কাছে এই আলো- কনে দেখা আলো
আমি বলি, প্রেম বোঝা আলো, প্রকৃতি জ্বালালো।
তুমি হেসে চুলের বিন্যাসে হলে মনোযোগী
সেই হাসি যেন ঝিকিমিকি ছোট ছোট ঢেউ,
তোমার মুখের কারুকার্য বঙ্গ টেরাকোটা
যার লাগি চোখে ঝরে জলবিন্দু ফোটা ফোটা।
আমার হাতের মধ্যে হাত রেখে হলে আনমনা
কী যে ভাবো তুমি? ভয় কী জমেছে মনে?
কালের করাত দেখে এত ভীরু হলে চলে
দেখো, কবি আজো খাড়া হয়ে শিখা হয়ে জ্বলে।
সূর্য বাড়ি ফিরে গেছে, তুমিও অস্থির
সন্ধ্যার আলো-আঁধারি ঘিরে আছে আমাদের,
তুমি কোন্ ঘরে ফিরে যাবে, বন্ধু, কোন ঘরে?
যাও, তবে ফিরে এসো চেতনার সরোবরে।