খোকা খুকি এবং দাদুর ছড়া / সাইফ আলি

১.
নীলের বুকে আরেকটু নীল
মেললো ডানা দুরন্ত চিল
চিলের ঠোঁটে মেঘের কুঁচি
দুধ-পায়েশে খোকার রুচি।


আকাশটা কি? মস্ত ফাঁকা!
বুক পকেটে দশটা টাকা,
দশ টাকাতে কিনলো ফুল
ফুল খুকিটার লম্বা চুল।


মগডালে কি? মেঘের চুঁড়ো
দাদুর হাতে মাছের মুড়ো
চুষলো দাদু সড়াৎ স
পড়লো ঝরে বকের ব।

২৫.০১.২০

একটা কাছিম বর্ম চাই / সাইফ আলি

একটা কাছিম বর্ম চাই
নয়তো নেতার চর্ম চাই
লাগবে না গা’য় কিছু,
হাজার কথা বলবে লোকে
জাত হবে না নিচু।

একটা কালো শ্লোগান চাই
ময়লা টাকার যোগান চাই
লাগবে না আর কিছু,
আমিই হবো কর্তা; সবাই
ছুটবে আমার পিছু।

১২.০৯.১৯

এইখানে ফের / সাইফ আলি

মেঘমালি ভেসে ভেসে
যাবে কতদূর
লখনৌ, দিল্লি নাকি মহীশূর?
পাঞ্জাব ঘুরে এসো এইখানে ফের
ঘুরে যেও ছোট্ট এ গ্রাম আমাদের।

01.07.19

সময়ের ছড়া-০৯ / সাইফ আলি

গ্যাস দিছি পানি দিছি,
খালি হাতে আইছি?
পাই বা না পাই কিছু
পদক তো পাইছি।

এতো রাগ করিস ক্যা
দাদা কিছু দিলো না!
বাঙালিরা কোনোদিন
এরকম ছিলো না।

বাঙালিরা দিলখোলা
ঘর বেঁচে বর চায়,
ঠাকুরের চেহারাটা
দ্যাখ বিনা খরচায়।

06.10.19

পদ / সাইফ আলি

মান যায় যাক তবু পদ বেঁচে থাক
নাক বেঁচে হয়েছি যে হাসির খোরাক;
এঁটো খেয়ে খেয়ে আজ এই পজিশন
দ্যাখ ভাই ছেড়ে দিতে চাচ্ছে না মন।

আমার কি দোষ, আমি হুকুমের দাস
বর্গায় নিয়ে জমি করে খায় চাষ;
মালিকের কথা মতো চলি ফিরি এই,
সত্যি বলছি কোনো স্বাধীনতা নেই।

পরধনে পোদ্দারি ক্যামনে তা করি
হাড় ছুড়ে দিলে তাই ছুটে গিয়ে ধরি,
স্বভাবটা যারই হোক অভাবটা যার
আমিও গোলাম শুধু সেই ক্ষমতার।

09.10.19

বুদ্ধিবেচা / সাইফ আলি

কুত্তা দেখে ভড়কিয়ে যাও
শুয়োর দেখে নাচো
তোমরা নাকি শেয়াল তাড়াও
মুরগি হয়ে বাচো!?

হাড় চেটে কেউ বাঘ হয়ে যাও
হরীণ খাওয়ার লোভে,
কিন্তু আবার আমিষ দেখে
লাল হয়ে যাও ক্ষোভে!

আন্দোলনের গন্ধ পেলে
সন্ধানী হও চুপে,
সুযোগ মতো ফায়দা লুটে
সাবধানে যাও ছুপে!

তোমরা নাকি বুদ্ধি বেচে
পয়সা কড়ি কামাও,
মাজার পারে লাত্থি দিমু
ফালতু আলাপ থামাও।

09.10.19

নাটক / সাইফ আলি

বিচারকের জলসা ঘরে
নাটক চলে নাটক,
সাবধানে খুব বিবেকটাকে
রাখতে হবে আটক।

সাবধানে পা ফেলে
একটু আওয়াজ তুলতে হবে
সময় সুযোগ পেলে,
তা না হলে মানবতার
দূত হওয়া কি সাজে!
কথাই আছে খালি কলস
ঠনঠনিয়ে বাজে।

29.06.19