ভুল / সাইফ আলি

এ হাতে রঙ ছিলো না তোমায় দিতাম,
যা ছিলো পাংশু কেবল বিষন্নতা;
কি ভুলে বলতে গেলাম মনের কথা
কেনো যে ডুবতে গেলাম পুশকনিতে,
যদি তা সাগর হতো, তাও মানাতো।

Advertisements

কেমনতর প্রেমিক তুমি / সাইফ আলি

কেমনতর প্রেমিক তুমি পাতার বাঁশি বাজাও না
স্বপ্নগুলো সুতোয় গেঁথে প্রিয়ার জন্য সাজাও না
বাস্তবতার গুল্লি মেরে সাহস নিয়ে আগাও না;
অনুভূতির শিকড়টাকে একটুখানি জাগাও না!

খাম্বা তুমি, পাথর তুমি, স্বর্থটাকে খুব বোঝো;
শকুন চোখে কেবল শুধু আমার চোখে প্রেম খোঁজো!
নইলে সেদিন শপিংমলে হীরার ছোটো আংটিটা
কিনতে গেলাম, বললে চেকের হয়নি আজো ভাংতি টা!

ভালোবেসে ভুল করেছি তোমার মতো বেকারকে
সত্যি বলছি কালকে থেকে চিনবো না আর কে কার কে।

ঘুসখোর / সাইফ আলি

তোর ঘুষের চর্বি নিলামে উঠলে
বিনে পয়সায়ও কিনতাম না,
ঘুষখোর বিনে কোনো পরিচয়ে
কোনোদিন তোকে চিনতাম না।

অফিসার তুই লজ্জা চিনিস?
চোর নস বেটা জোচ্চর-
উল্টাপাল্টা ভূগোল পড়ায়ে
পরিচিতি মিঠে ঘুসখোর।

বারান্দা নির্বাক / সাইফ আলি

বারান্দা নির্বাক
গোলাবের টবে এক ফুটেছিলো জুঁই
গামছাটা ভেজা ছিলো
আর ছিলো মেঘেদের শাদাশিদে ভুঁই।
ঠান্ডা বাতাস ছিলো
দুটো কাক বসে ছিলো সামনের ছাদে
হঠাৎ কোকিল এলো কিছুক্ষন বাদে।
কাকের যে বাসা ছিলো
এটাওটা ঠাসা ছিলো
আর ছিলো বেওয়ারিশ কোকিলের ছাও;
পারো যদি এর সোজা সমাধান দাও।
ফল ছিলো জল ছিলো,
চেতনার তল ছিলো? না না না…
ব্যবসার খাতা খুলে
দু’লাইন দিই তুলে
হিসাবটা কষে ফের জানা না,
গোলাবের টবে কেনো ফুটেছিলো জুই;
বারান্দা জুড়ে কোনো শুন্যতা তুই?

ভালো নেই কেউ / সাইফ আলি

ভালো নেই কেউ-
ভালোথাকা ভালো নেই
ভালোলাগা ভালো নেই
ভালো লেখা ভালো নেই
ভালো আঁকা ভালো নেই
ভালো নেই যেই মুখ ভালো রাখে সেও…

ভালো নেই সমুদ্র ভালো নেই ঢেউ
ভালো নেই ঝর্ণা অথবা নদী, কেউ;
ভালো নেই কাশবন অথবা ফুলের টব
ভালো নেই আমাদের লোকগাঁথা, উৎসব
ভালো নেই সাহিত্য, শিল্পের ঘরদোর
ভালো নেই আমাদের মন
তবুও থাকছি ভালো প্রতিদিন হাসিমুখ
কি দারুণ নিদারুণ চলে আয়োজন…

লাগবে না ভালো / সাইফ আলি

লাগবে না ভালো ভাই লাগবে না ভালো
চাড়ালের কোনো কথা লাগবে না ভালো
কালো চশমায় ঢেকে লুকোবেন কতো
ক্রমেই যে বেড়ে যায় বিবেকের ক্ষত!!

খ্যাত / সাইফ আলি

রুচিতে আসে না আর মুরগির ঝোল
সূচিতে চিকেন ফ্রাই, বার্গার, রোল
রুচিতে আসে না আর শেমাই পায়েশ
ফ্রেন্স ফ্রাই সসে আনে ভোজনে আয়েস
তারপর কোল্ড ড্রিংক্স; আছে হট ডগ,
বিদেশী মদের মোহে ঘোড়া টগবগ।

বাঙলিয়ানায় তবু মুখে ফোটে খই
তাদেরই আমরা আজ আধুনিক কই!!
আধুনিকতার তবে টাটা গুড বাই-
আমরা খ্যাতের দল, খ্যাত থেকে যাই।

আপনাদের কারো কাছে যদি সে দায়গ্রস্থ থাকে… / সাইফ আলি

আসুন, একদলা অহমিকার কফ ছুড়ে দিই সাগরের জলে
লবনজলের ছোঁয়ায় তা পরিশুদ্ধ হয়ে উঠুক সরল মানবিকতায়
একমুঠো আকাঙ্ক্ষার দুঃখ ছুড়ে দিই ঝরনার বুকে
মৃত জীবাশ্বার মতো ভেসে যাক বহুদূর, আর
মৃত স্বপ্নগুলোকে রাখুন নরম পলিতে;
জীবন্ত ব্যকটেরিয়ার পাকস্থলিতে জমা হোক বিশুদ্ধ বৃক্ষের সার-

আপনি কি গতকাল জানাজায় শরিক ছিলেন
যখন আমরা সবাই সভ্যতার রূহের মাগফিরাত কামনা করলাম;
আর বললাম, ‘আপনাদের কারো কাছে যদি সে দায়গ্রস্থ থাকে…’

শীতের গান / সাইফ আলি

আমরা যারা সকাল হলেই মুখ ধুয়ে নিই দাঁত মাজি
নাস্তা করে অফিস যাই
তাদের কি আর শীত লাগে?
শীত আসে ঐ পথের পাশে কাঁপতে থাকা শিশুর গায়
শীত আসে যার মাথার উপর ছাদ থাকেনা রাত্রিদিন, তার দেশে।
আমরা বড় দুঃখ করে ভাবতে থাকি খেজুর রস এবং ভোরের সূর্যস্নান;
কিন্তু ওদের দুই পাটি দাঁত গেতেই থাকে শীতের গান।

কাঠের পুতুল / সাইফ আলি

চেতনার লাল-নীল ঘোড়া দাবড়িয়ে
সমাজের নেতাদের শুধু থাবড়িয়ে
যারা মনে করছেন হলো বুঝি কাজ
আসলে তারাই সব মূর্খ সমাজ…

মূর্খ এ তকমাটা হতে পারে ভুল
মূলত তারাই সব কাঠের পুতুল।