ছোটো ছোটো পাখিদের / সাইফ আলি

ছোটো ছোটো পাখিদের
বড়ো বড়ো বাড়িগুলো
খালি পড়ে আছে
আছে কেউ ভাড়া নেবে?
সস্তায় ভাড়া দেবো
তোমাদের কাছে।।

পাখিগুলো হারালো কোথায়
কেউ সে খবর রাখেনি,
তবে কি সে পাখিগুলো
এখানে স্বপ্ন আঁকেনি?
খুঁজে দেখো খুঁজে দেখো
কিছু কি লুকোনো আছে।

পাখিগুলো বাসতো ভালো
একই এই চাঁদের আলো
একই সুরে গাইতো তারাও-
“এ আঁধার ভীষণ কালো।”

পাখিগুলো হারালো কোথায়
কেউ সে খবর রাখেনি,
বয়ে গেছে নদীর জল
অপেক্ষায় বসে থাকেনি!
বুঝে দেখো বুঝে দেখো
কি মূল্য তোমার আছে?

০২/০৭/২২

তোমার শীতল চোখের তারায় / সাইফ আলি

তোমার শীতল চোখের তারায়
হারাই হারাই হারিয়ে যাই আমি
তোমার কাছে আমার সবই
অযথা কাজ অযথা পাগলামী।।

তোমার হাতেই থাকুক নাটাই
তবু আমি তোমাকে চাই
তুমি থেকো আমার পাশে
বিকেল বেলা সবুজ ঘাসে।
তোমার মুখে ফুটুক হাসি
সুখে থাকো ও প্রেয়সী তুমি…

তুমি ছাড়া প্রতিটি রাত
যেনো গভীর গভীর আঘাত
এপাশ ওপাশ কোরে কাটা
একা একা শহর হাাঁটা।
তোমার মুখে ফুটুক হাসি
সুখে থাকো ও প্রেয়সী তুমি…

০১/০৭/২২

শক্ত কোরে ধরো প্রিয় ছেড়ে দিও না / সাইফ আলি

শক্ত কোরে ধরো প্রিয় ছেড়ে দিও না
শুরুতেই এই পরাজয় মেনে নিও না।।

সাগরে না ভেসে কেউ হয় কি নাবিক?
না পড়ে প্রেমে কভু হয়না প্রেমিক;
জোয়ারে ভাটাতে এক নদীর জীবন
ছুটছে সাগর পানে সারাটাক্ষন।।
তাই আসুক বাধা তবু এ হাল ছেড়ে দিও না
শুরুতেই এই পরাজয় মেনে নিও না।

জলের আঘাতে যদি পাথর ক্ষয়ে যেতে পারে
যাপনে নাজুক হৃদয়, সে তো ব্যাথা পেতেই পারে;
ব্যাথাতে কাতর হয়ে ভেঙে পোড়ো না
শুধু এই বালির উপর প্রাসাদ গোড়ো না।

০১/০৭/২২

সহজ কথা বলবো বলে / সাইফ আলি

সহজ কথা বলবো বলে কঠিন হয়েই বসে গেলাম
সরল হাসির মোহে তোমার জটিল অংক কষে গেলাম।।

সহজ তুমি সহজ আমিই জটিল করি জীবনটাকে
জটিল জীবন যাপন করি সহজ ভালোবাসার ফাঁকে,
বলতে পারো খুব সহজে দুঃখ ছাড়া আর কি পেলাম।।

সহজ ভাঙা কঠিন গড়া,
জীবন বোধের নামতা পড়া
নয়তো সহজ তবু
কঠিনটাকেই সহজ করে
দাও মিলিয়ে প্রভূ।

সহজ সাগর সহজ নদীই কঠিন ঢেউয়ের বসতবাটি
জীবন তরী দোলায় ভীষণ, বানায় দক্ষ নাবিক খাঁটি;
বলতে পারো খুব সহজে সফলতা কোথায় পেলাম।।

৩০/০৬/২২

দেয়ালের আড়ালে / সাইফ আলি

দেয়ালের আড়ালে
কেনো বা দাঁড়ালে
কেনো বা বাড়ালে তোমার হাত
আপন যদি হতেই চাও
মুখোমুখি হোক মোলাকাত।।

দূর থেকে বাসতে ভালো
চাঁদ তারা মেঘমালা থাক
তুমি কেনো রাখবে আড়াল
এ দেয়াল ভেঙেচুরে যাক।।
না না শুনবো না কোনো অযুহাত…

কি তোমার ভয়
কিসে পরাজয়
মানছে বলো মন,
লুকিয়ে বলো কে নিভাতে পেরেছে
প্রেমের এ দহন?

পুড়ে পুড়ে ছাই হয়ে যাই
তবুও তোমায় কাছে চাই,
তোমাকে ছাড়া এ জীবন
একলা নাবিক দরিয়ায়।।
তুমি বন্ধ করো এ রক্তপাত…

২৫/০৬/২২

যেই বানের জলে ভাইসা গেছে সহায় সম্বল / সাইফ আলি

যেই বানের জলে ভাইসা গেছে সহায় সম্বল
মরার চোখ তোর কান্দনে বাড়িলো আবার সেই বানেরই জল;
হোক কষ্ট যতই ডাকিস না সই দূর পাহাড়ের ঢল।।

ভাইসা গ্যাছে চুলোর আগুন
কুলোতে নাই চাল,
ভাইসা গ্যাছে ময়না বিবির
ইট্টুকুন ছাওয়াল;
আমি ক্যামনে তারে শান্ত করি তুই আমারে বল।।

কত মানুষ লাশ হইলো আর
নিঃস্ব হইলো কতো,
ও রহমান তুমিই পারো
সারাইতে এই ক্ষত;
জানি, যা পাইয়াছি সব আমাগো আপন কর্মফল।।

২৩/০৬/২২

ওগো নদী / সাইফ আলি

ওগো নদী
গোলাপের মতো রাঙা ওষ্ঠে তোমার কালো তিল
ঐ চিল
ভোরে সন্ধ্যায় ঝিলমিল ঝিলমিল
আহা তোমার নিখিল!

সীমাহীন গতিময়
তোমার হৃদয়,
তোমার ছোঁয়ায়
এ মাটির বুকে প্রাণ সঞ্চার হয়।
তোমার ঐ বুক ভরা প্রাণের মিছিল!

বাঁকা চাঁদের মতো
জীবিকার নাওগুলো ভাসছে,
দুকূলে তোমার সোনার ফসল হাতে
সবুজের শ্রমিকেরা হাসছে।
নদী তোমার
রমণীর সাথে পাই মিল।

১০/০৬/২২

এখন যান্ত্রিক যুগলেরা / সাইফ আলি

এখন যান্ত্রিক যুগলেরা
কফির আড্ডায় এসে
হেসে হেসে ফেটে পড়ে বিনাকারণেই
জানি ভালোবাসা কেঁদে মরে অন্তরালেই।।

পকেটের ভার মেপে
বলে দেয় সংক্ষেপে,
চোখে চোখ রেখে করে প্রতারণা!
আজ সহজ মানুষের মূল্য যে নেই।।

ফিতা কেটে সুরু হয়
উৎসব অভিনয়
ক্যামেরার স্ক্রিনে যেনো হাসি ধরে না!
হায় দিনশেষে খুঁজে ফেরে নিজেকে নিজেই।।

০১/১০/২০

চাঁদ জ্বলেছিলো বলে আকাশে / সাইফ আলি

চাঁদ জ্বলেছিলো বলে আকাশে
মেঘেদের দল রুপোলী আলোয় মেতেছিলো
তুমি হেসেছিলে তাই বকুলের দল
শুভ্র চাদর পেতেছিলো।।

কত নদী বয়ে যায় ভাসিয়ে দু’কূল
তোমার পরশে ফোটে প্রেমের মুকুল
তাই তোমার নামে কেউ সুর তুলেছিলো..
চাঁদ জ্বলেছিলো বলে আকাশে
মেঘেদের দল রুপোলী আলোয় ভুলেছিলো।।

কত তারা নীভে যায় কতক আবার
জ্বলে ওঠে বার বার স্মরণে তোমার
হায় তোমার নামে কেউ সুর সেধেছিলো
চাঁদ জ্বলেছিলো বলে আকাশে
কবিতার সাথে কবি ঘর বেঁধেছিলো।।

৩০/০৯/২০

কোনোকিছু নিয়ে ভাবতে চাইনা আর / সাইফ আলি

কোনোকিছু নিয়ে ভাবতে চাইনা আর
ভাঙতে চাইনা আমাদের সংসার
চলছে যেমন তেমনি চলুক
সত্য লুকিয়ে মিথ্যে বলুক ইচ্ছে হয়েছে যার
ভাঙতে চাইনা নিরিবিলি এই শামুকের সংসার।।

পাশের বাসার ঐযে মেয়েটা সে আমার ছোটো বোন
শুনলাম নাকি বখাটেরা তাকে করেছে ধর্ষণ
কি বলবো আমি আমার কি দায় আমি কি করতে পারি
মনটা খারাপ তাইতো সকালে বউকে দিয়েছি ঝাড়ি।।
জীবন চলে না তার যতসব উদ্ভট আবদার…

দুর্ণীতিবাজ চুনোপুটিগুলো কঠিন তো নয় ধরা
কিন্তু এ জালে ফাসবে না জানি রাজত্য যার গড়া;
কি বলবো আমি আমার কি দায় আমি কি করতে পারি
মনটা খারাপ ভাবছি আজকে ফিরবো না রাতে বাড়ি।।
চলছে যেভাবে চলুক না সব জীবনটা যার যার।

মাথাতে পচন তাতে কি মাছের লেঞ্জাটা তরতাজা
বিশ্বাস নেই? কি করা তাহলে ভরশা পটল ভাজা!
নিরুপায় আমি নিরিহ আমার শাদাকালো দিন রাত
নামাজ রোজায় কোনোভাবে যদি মিলে যায় জান্নাত।।
সেই ধান্দায় কোনোভাবে ভাই জীবন করছি পার।

২৭/০৯/২০